Sir Fazle Hasan Abed No More

sir Fazle Hasan Abed

Sir Fazle Hasan Abed No More

sir Fazle Hasan Abed

ব্র্যাক  বাংলাদেশের  প্রতিষ্ঠাতা  Sir Fazle Hasan Abed মারা  গেছেন।

আজ (২০ ডিসেম্বর) রাত ৮টা ২৫ মিনিটে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

মৃত্যুকালে তিনি তাঁর স্ত্রী, একটি কন্যা, তিন নাতি-নাতনী, আত্মীয়স্বজন এবং অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন ।

২৮ নভেম্বর বিভিন্ন স্বাস্থ্য জটিলতায় Sir Abed কে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

তিনি BRAC প্রতিষ্ঠা করেছিলেন, যার শুরুতে বাংলাদেশ রুরাল অ্যাডভান্সমেন্ট কমিটি নামকরণ করা হয়েছিল ।

অর্থনৈতিকভাবে দেশ গড়ার স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালে বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম বেসরকারী সংস্থা।

ব্রিটিশ রানির নাইটহুড ছাড়াও Sir Abed কে সামাজিক বিকাশে অবদানের জন্য অসংখ্য জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পুরষ্কার এবং সম্মানসূচক ডিগ্রি প্রদান করা হয়েছিল।

এর মধ্যে রয়েছে বিশ্ব খাদ্য পুরষ্কার, ইদান প্রাইজ, লিও টলস্টয় আন্তর্জাতিক স্বর্ণপদক, হেনরি আর ক্রাভিস পুরষ্কার |

লেগো পুরস্কার, লাউডাতো সি ‘অ্যাওয়ার্ড, টমাস ফ্রান্সিস, গ্লোবাল পাবলিক হেলথের জুনিয়র মেডেল |

সিভিল মেরিটের স্প্যানিশ অর্ডার, শিক্ষার জন্য ডাব্লুআইএসই পুরষ্কার, ওপেন সোসাইটি প্রাইজ |

তিনি যে সম্মানসূচক ডিগ্রি পেয়েছেন তার মধ্যে রয়েছে প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়, কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়।

Sir Abed এই বছর আগস্ট মাসে ব্র্যাক বাংলাদেশ এবং BRAC ইন্টারন্যাশনালের চেয়ারপারসন হিসাবে অবসর গ্রহণের ঘোষণা দিয়েছিলেন |

যেহেতু তিনি এমিরিটাসের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

ব্র্যাক সূত্র জানিয়েছে, লোকজনের শ্রদ্ধা নিবেদনের সুবিধার্থে তাঁর মরদেহ রবিবার সকাল দশটা থেকে রাত ১২ টা পর্যন্ত ঢাকা আর্মি স্টেডিয়ামে রাখা হবে।

রাজধানীর বনানী কবরস্থানে তাকে দাফন করার আগে Sir Abed এর জানাজা দুপুর সাড়ে ১২ টায় ঢাকা আর্মি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশের BRAC আজ সারা বিশ্বে পরিচিত। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ও সম্মানিত এনজিও।

মহান মুক্তিযুদ্ধের পর যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশের তৃণমূলের মানুষের সেবা করতে গিয়ে ব্র্যাক প্রতিষ্ঠা করেন Fazle Hasan Abed ।

মাত্র এক লাখ কর্মী নিয়ে শুধু বাংলাদেশেই নয়, পৃথিবীর ১১টি দেশের ১২০ মিলিয়ন মানুষকে বিভিন্ন সেবা দিয়ে চলেছে BRAC

বেসরকারি উন্নয়নে নিজেকে বিলিয়ে দেওয়া  Fazle Hasan Abed সমাজকর্মের জন্য স্যার উপাধি পাওয়া ছাড়াও |

বিশ্বের বহু সম্মানিত পুরস্কার পেয়ে বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সম্মানিত করেছেন।

৮৩ বছর বয়সে চলতি বছর Sir Fazle hasan Abed  BRAC এর চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যাহতি নেন।

তাঁকে প্রতিষ্ঠানটির ইমেরিটাস চেয়ার নির্বাচিত করা হয়।

১৯৭২ সালে BRAC প্রতিষ্ঠা করার পর তা বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থায় পরিণত হয়েছে।

Sir Fazle Hasan Abed  ১৯৩৬ সালের ২৭ এপ্রিল বাংলাদেশের হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

তিনি পাবনা জিলা স্কুল থেকে ম্যাট্রিকুলেশন এবং ঢাকা কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন।

এরপর তিনি ব্রিটেনের গ্লাসগো বিশ্ববিদ্যালয়ে নেভাল আর্কিটেকচারে ভর্তি হয়েছিলেন।

সেটা বাদ দিয়ে তিনি লন্ডনের চার্টার্ড ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউনট্যান্টসে ভর্তি হন।

১৯৬২ সালে তিনি তাঁর প্রফেশনাল কোর্স সম্পন্ন করেন।

চলতি বছর Sir Fazle Hasan Abed এর চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যাহতি নেন।

তাঁকে প্রতিষ্ঠানটির ইমেরিটাস চেয়ার নির্বাচিত করা হয়।

১৯৭২ সালে BRAC প্রতিষ্ঠা করার পর সংস্থাটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থায় পরিণত হয়েছে।

দারিদ্র্য বিমোচন ও উন্নয়নে ভূমিকা রাখায় Sir Abed বাংলাদেশ ও বিশ্বের অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ অ্যাওয়ার্ড ও সম্মাননা পেয়েছেন।

১৯৮০ সালে র‍্যামন ম্যাগসাইসাই পুরস্কার, ২০১১ সালে ওয়াইজ প্রাইজ অব এডুকেশন, ২০১৪ সালে লিও টলস্টয় ইন্টারন্যাশনাল গোল্ড মেডেল,

স্প্যানিশ অর্ডার অফ সিভিল ম্যারিট, ২০১৫ সালে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি পুরস্কার অর্জন করেন।

সর্বশেষ চলতি বছর তিনি সিঙ্গাপুর ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে দক্ষিণ এশিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে সাউথ এশিয়ান ডায়াসপোরা অ্যাওয়ার্ড শিক্ষায় ভূমিকা রাখায় ইয়াডান পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন।

BRAC এর প্রতিষ্ঠাতা Sir Fazle Hasan Abed এর মৃত্যতে Shodagor International Limited পরিবার গভীর ভাবে শোকাহত ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Click to access the login or register cheese

Shop By Department